“হ্যার নামে বাক্স থোবা!আমনে আমনে ভইরা যাইবে”!

0
553

সারাদেশে চলছে পৌর নির্বাচনের আমেজ, যার ব্যতিক্রম নেই বরগুনা পৌর এলাকার অলিগলি কিংবা টং চা এর দোকান। সর্বত্র  আলোচনা একটাই,কে হবেন বরগুনার পৌরসভার আগামীর পৌর পিতা? তবে পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় সরোজমিনে ঘুরে জানা যাচ্ছে,জনপ্রিয়তার দৌড়ে সবচাইতে বেশী এগিয়ে রয়েছেন বরগুনার বর্তমান জনবান্ধব মেয়র মোঃশাহাদাত হোসেন।

সারা দেশের মধ্যে বরগুনা পৌরসভা এখন অন্যতম মডেল পৌরসভা হিসেবে পরিচিত। নির্বাচনের দৌড়ে জনগণের কাছে আস্থার প্রতীক এখন বর্তমান মেয়র জনাব মোঃ শাহাদাত হোসেন।ত্যাগের বিনিময় দলের মূল্যায়ন আর রাজনৈতিক দক্ষতা ও বিচক্ষণতার মাধ্যমে মুজিব আদর্শের এ সৈনিক ২০০৩ সাল থেকে দুই মেয়াদে পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পদ অর্জন করেন। ২০১১ সালে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে বরগুনা পৌরসভায় প্রথম মেয়র হিসেবে তিনি নির্বাচিত হন। গণমানুষের আস্থা ও ভালবাসার শক্তিতে ২০১৬ সালের নির্বাচনেও বিপুল ভোটে জয়ী হন তিনি।

এবারের নির্বাচনেও সেই জনপ্রিয়তা আর মানুষের ভালোবাসার কমতি নেই একটুও। এইতো সেদিন হাসপাতাল সড়কের আম্বিয়া খাতুন পৌর নির্বাচনের কথা বলতেই চিৎকার দিয়ে বলে উঠেন”ক্যা হ্যারে ভোট দেওয়া লাগবে ক্যা??হ্যার নামে একটা বাক্স থোবা!আমনে আমনে ভইরা যাইবে”! শুধু তাই নয় বরগুনার ৩নং ওয়ার্ডে আশ্রয় কেন্দ্রে ৮০ বছরের অসুস্থ বৃদ্ধা ফতু বেগম মেয়র শাহাদাত হোসেনের নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় তার ছবি ও পোস্টার ধরে কেঁদে কেঁদে বলেন সে ছাড়া আর মোগো আছে কেডা?  মুই যদি হাইট্টা না যাইতে পারি ছ্যাচড়াইতে ছ্যাচড়াইতে ভোটকেন্দ্র যামু! তার পরও হেরে ভোটটা দিমু।

মেয়র শাহাদাত বলেন বহু বছর ধরে বরগুনা পৌরসভা নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনা করেছি। সাধারণ মানুষের হৃদয়ের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। আজ সাধারণ মানুষের দোয়া ও ভালোবাসায় আল্লাহর রহমতে গরীব দুঃখী মেহনতী মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিতে পেরেছি। দল-মত নির্বিশেষে শহরের সাধারন জনগণ আমাকে দুইবার মেয়র নির্বাচিত করেছেন।ইনশাআল্লাহ এবারের নির্বাচনেও বরগুনাবাসী আমাকে পূনরায় মেয়র নির্বাচিত করবেন।

উল্লেখ্য গত পৌর নির্বাচনে বরগুনা পৌরসভার অনেক সাধারণ মানুষ ভোট দিতে গিয়ে, ভোটকেন্দ্রে গিয়ে বিভিন্ন হুমকি ধামকি তথা নির্যাতনের সম্মুখীন হয়েছিলেন। সে কথা স্মরন রেখে অনেকেই বলেছেন নিজেদের পবিত্র আমানত ভোট,এইবারের নির্বাচনে কোন অবস্থাতেই কাউকে ছিনিয়ে নিতে দিবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here